পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ২০২৪ | Update Schedule 2024

যারা ট্রেনে ভ্রমণ করেন তাদের অনেকেই পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ২০২৪ এবং পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়া কত জানতে চান। আজকের আমাদের এই প্রবন্ধের মাধ্যমে আপনারা পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচি এবং তার বিস্তারিত তথ্য সুন্দরভাবে পেয়ে যাবেন। পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনটি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী মাননীয়া শেখ হাসিনা ২০১৯ সালে ২৫শে মে উদ্বোধন করেন। এই ট্রেনটি ঢাকা থেকে পঞ্চগড় পর্যন্ত ৫৯৩ কিলোমিটার ১০ ঘণ্টা ৪৫ মিনিটে অতিক্রম করে। পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনটি বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা শহর থেকে প্রতিদিন অসংখ্য যাত্রী পরিবহন করে। ট্রেনটির মধ্যে অত্যাধুনিক সুবিধা রয়েছে যা আমরা বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

পঞ্চগড় ট্রেনের সংক্ষিপ্ত বিবরণ

বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃক পরিচালিত পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ২০২৪ এবং পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সংক্ষিপ্ত বিবরণ আমরা আপনাদের সামনে তালিকার মাধ্যমে উপস্থাপন করেছি।

ট্রেনের ধরণ আন্তঃনগর ট্রেন
প্রথম যাত্রা২৫ মে ২০১৯
পরিচালকবাংলাদেশ রেলওয়ে
যাত্রা শুরুকমলাপুর স্টেশন
যাত্রা শেষপঞ্চগড় স্টেশন
দুরুত্ব৫২৬ কিলোমিটার
যাত্রা সময়১০ ঘন্টা ৪৫ মিনিট

পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ২০২৪

আমরা সাধারণ মানুষেরা ভ্রমণের জন্য সেরা পরিবহন মাধ্যম হিসাবে ট্রেনকেই বেছে নিই। কারণ ট্রেন হলো স্বল্প খরচের মধ্যে আরামদায়ক ভ্রমণের জন্য সুন্দর উপযুক্ত মাধ্যমে। পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনটি ৬ টি স্টেশনে বিরতি নেয়, বাকি সময় ট্রেনটি একইভাবে চলাচল করে।  [সময়সূচীর অফিসিয়াল উৎস]

ঢাকা থেকে পঞ্চগড় (আপ) পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনটি রাত্রি ১০:৪৫ মিনিটে কমলাপুর স্টেশন (ঢাকা) থেকে যাত্রা শুরু করে এবং সকাল ৮:৫০ মিনিটে পঞ্চগড় (বী,মু ,সি,ই )স্টেশনে পৌঁছায়। এই যাত্রাপথের মাঝে পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনটি ৬ টি স্টেশনে যাত্রা বিরতি নেয়।

পঞ্চগড় থেকে ঢাকা (ডাউন) পঞ্চগড় স্টেশন অর্থাৎ (বী,মু ,সি,ই ) স্টেশন থেকে বেলা ০১:১৫ মিনিটে ট্রেনটি তার যাত্রা শুরু করে এবং রাত্রি ১০:৩৫ মিনিটে তার গন্তব্য ঢাকা অর্থাৎ কমলাপুর স্টেশনে পৌঁছায়।

ঢাকা টু ব্রাহ্মণবাড়িয়া ট্রেনের সময়সূচী ২০২৩

স্টেশন নামছাড়ার সময়গন্তব্যপৌছানোর সময়ছুটির দিন
ঢাকা (কমলাপুর) ২২:৪৫পঞ্চগড়০৮:৫০নেই
পঞ্চগড় ১২:৩০কমলাপুর (ঢাকা)২১:৫৫নেই
পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ২০২৩

পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়া তালিকা

একমাত্র লোকাল ট্রেন ছাড়া প্রত্যেক এক্সপ্রেস ট্রেনের মধ্যে বিভিন্ন শ্রেণি ভাগ থাকে এবং এই শ্রেণী গুলির ভাড়া আলাদা আলাদা হয়। প্রত্যেক মানুষের প্রয়োজন অনুযায়ী কম বেশি ভাড়া ভাগ করা থাকে, যার যেই রকম সামর্থ্য সে সেই রকম ভাড়া দিয়ে টিকিট বুকিং করবে। আসুন দেখে নিন পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা ২০২৩ যেটি আমরা আপনাদের জন্য তালিকাবদ্ধ করেছি।

স্টেশন শোভন চেয়ারএসি চেয়ারএসি কেবিন
ঢাকা -পঞ্চগড়৫৫০ টাকা১০৫৩ টাকা১৯৪২ টাকা
ঢাকা -পার্বতীপুর ৪৪০ টাকা৮৪০ টাকা১৫৬৩ টাকা
ঢাকা – দিনাজপুর ৪৬৫ টাকা৮৯২ টাকা১৬৪৯ টাকা
ঢাকা – ঠাকুরগাঁও৫২০ টাকা৯৮৯ টাকা১৮৩৩ টাকা

পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের বিরতি স্টেশন

আমরা সকলেই জানি যে কোনো ট্রেন যখন তার যাত্রা শুরু করে তার মাঝে কয়েকটি স্টেশনে যাত্রা বিরতি নেয়, কারণ সেই সব স্টেশন থেকে অনেক মানুষ ওঠানামা করে। সেই রকমই পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের বিরতি স্টেশনগুলির নাম এবং বিরতি স্টেশনের সময়সূচি গুলি আমরা সুন্দরভাবে তালিকার আকারে আপনাদের সামনে প্রস্তুত করেছি। তালিকাটি আমরা নিচে উপস্থাপন করেছি অবশ্যই ভালো ভাবে তালিকাটি দেখে নিন।

আজকের ট্রেনের সময়সূচী ২০২৪

স্টেশন নাম ঢাকা থেকে (৭৯৩)পঞ্চগড় থেকে (৭৯৪)
বিমান বন্দর২৩:১২২১:২৫
সান্তাহার০৪:১০১৭:০৫
পার্বতীপুর০৫:৫০১৫:১৫
দিনাজপুর০৬:৩২ ১৪:২০
পীরগঞ্জ০৭:২১১৩:৩৩
ঠাকুরগাঁও ০৭:৪৭ ১৩:০৭

ট্রেনে চাপার নিয়ম

ট্রেনে চাপার আগে অবশ্যই আমাদের ট্রেনের নিয়ম কানুন গুলি জেনে রাখতে হয়। সেই নিয়মগুলি কি তা জেনে নিন..

  • প্রথমে আপনাদের বলে রাখি টিকিট ছাড়া ট্রেনে ভ্রমণ করা দণ্ডনীয় অপরাধ।
  • আপনার ট্রেনের টিকিট টি নিজের কাছে যত্ন সহকারে রাখুন যতক্ষণ পর্যন্ত স্টেশন থেকে বেরিয়ে না আসছেন।
  • আপনার মালপত্র আপনার নিজের দায়িত্বেই রাখুন।
  • অযথা ট্রেনের স্টপচেইন টানবেন না।
  • আপনার পরিচিত ব্যক্তি ছাড়া অন্য ব্যক্তির দেওয়া কোনো খাবার খাবেন না।
  • ট্রেন থেকে অযথা উঠানামা করবেন না।
  • ট্রেনের মধ্যে জ্বলনশীল বস্তু নিয়ে উঠবেন না।

শেষ কথা

আশা করি আমাদের দেওয়া পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ২০২৪ এবং পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা গুলি আপনাদের যাত্রা পথে কোনো রকম অসুবিধা ফেলবে না। তবে আপনাদের কাছে অনুরোধ ট্রেনে যাত্রা করার আগে অবশ্যই স্টেশন থেকে অথবা অনলাইন থেকে টিকিট বুক করে নেবেন। বিনা টিকিটে ট্রেনে যাত্রা করবেন না।

আপনারা যদি ঈদের সময় ট্রেনে ভ্রমণ করতে চান তাহলে অবশ্যই আন্তঃনগর ট্রেন গুলিকে বেছে নেবেন। কারণ আন্তঃনগর ট্রেনগুলি ভ্রমণের জন্য সবথেকে ভালো এবং আরামদায়। আমাদের পোষ্টের মধ্যে যদি আপনাদের কোথাও সমস্যা থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন আমরা খুব শীঘ্রই আপনার প্রশ্নের উত্তর দিয়ে দেব। আমাদের টিম আপনাদের যাত্রা শুভ হোক এটাই কামনা করে। ধন্যবাদ

I'm Suhana Khan, I'am a professional blogger and a teacher. I am happy to share new information and it's proud for me. I have 3 years experience of blogging.

Leave a Comment