১ জানুয়ারী থেকে রেশন ব্যবস্থা নিয়ে বড় ঘোষণা, তাহলে কি রেশন বন্ধ হয়ে যাবে

সম্প্রতি কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে রেশন ব্যবস্থা নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ডিসেম্বর মাসের পর থেকেই অর্থাৎ আগামী ১ লা জানুয়ারি থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে বলে এমনটাই জানা গেছে। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তে দেশের সাধারণ মানুষের উপর কতটা প্রভাব পড়বে তা বিস্তারিত জানুন।

দুর্গাপুজোর ঠিক আগে সাধারণ মানুষের জন্য রেশন নিয়ে মোদি সরকারের তরফ থেকে একটি বড় ঘোষণা করা হয়েছিল। সেই ঘোষণার কারণে দেশের কোটি কোটি মানুষ অনেক খুশি হয়েছিল। কারণ কঠিন পরিস্থিতির মাঝে কেন্দ্র সরকারের এমন সিদ্ধান্তের ফলে সাধারণ মানুষের দুবেলা খাবার নিয়ে ভাবতে হবে না। তবে কি সেই সিদ্ধান্ত ?

করোনার কারণে সারা দেশে লকডাউন শুরু হয়েছিল তারপর থেকেই বহু মানুষের কাজ চলে যায় এবং সাথেই দুমুঠো খাবারের জন্য চারিদিকে হাহাকার পড়ে যায়। দরিদ্র ও নিম্ন মধ্যবিত্ত মানুষেরা দু-বেলা খাবার কোথা থেকে পাবে সেই নিয়ে সংশয় তৈরি হয়। এই কঠিন সময়ে কেন্দ্র সরকার গরিব অসহায় মানুষদের পাশে এগিয়ে এসেছে এবং কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনা চালু করা হয়।

SIM Card: কেন্দ্র সরকারের নতুন নিয়ম সিম কার্ড গ্রাহকদের জন্য, না মানলে জরিমানা ও জেল

এই প্রকল্পের অধীনে যেসব ভারতীয় নাগরিকদের বৈধ রেশন কার্ড আছে তারা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে রেশন দোকান থেকে চাল ও গম পেতে শুরু করে। করোনা পরিস্থিতি কাটিয়ে যখন দেশের সবকিছু আগের মতোই স্বাভাবিক হয় তারপরও কেন্দ্র সরকার নিম্নবিত্ত মানুষের কথা ভেবে প্রকল্পটি বন্ধ করেনি। তবে এখন এই প্রকল্পের মেয়াদ ডিসেম্বর মাসেই শেষ হয়ে যাবে। এখন সাধারণ মানুষের মধ্যে একটা কৌতূহল জন্মেছে, ১ লা জানুয়ারি থেকে বিনামূল্যে রেশন ব্যবস্থা নিয়ে কি হবে।

এর আগে কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে ঘোষণা করা হয়েছিল ২০২৩ সালের ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত দেশের সকল মানুষকে বিনামূল্যে চালু ও গম দেওয়া হবে প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার অধীনে। তারপর থেকেই মানুষের মধ্যে একটা জল্পনা ছড়িয়েছিল যে এই প্রকল্প বন্ধ হয়ে যাবে কারণ বিগত বছর থেকে কেন্দ্রের রাজকোষের অবস্থা খুব একটা ভালো নয়। মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়া এই জল্পনা সঠিক ছিল না তার প্রমাণ পাওয়া গেল। কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে রেশন নিয়ে নতুন ঘোষণা হওয়ার পর সবকিছু পরিষ্কার হয়ে গেল।

Composite Gas Cylinder : বাজারে আসছে নতুন গ্যাস সিলিন্ডার, আবার বাড়লো খরচ

কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে আরও ৫ বছরের জন্য প্রধানমন্ত্রী যোজনা চালু থাকবে এবং এই যোজনার অধীনস্থ প্রায় ৮০ কোটি দেশের নাগরিককে প্রতি মাসে বিনামূল্যে চাল ও গম দেওয়া হবে। এখানে উল্লেখযোগ্য প্রত্যেক মাসে ৫ কেজি করে মাথাপিছু চাল দেবে কেন্দ্র সরকার।

সরকারের তরফ থেকে ১ লা জানুয়ারি ২০২৪ থেকে প্রকল্পের মেয়াদ আরো ৫ বছরের জন্য বাড়ানো হবে। অর্থাৎ প্রকল্পের অধীনস্থ নাগরিকরা বিনামূল্যে ২০২৯ সাল পর্যন্ত চাল ও গম পাবে। এই প্রকল্প টিকিয়ে রাখতে ৫ বছরে সরকারের খরচ হবে প্রায় ১১ লক্ষ ৮০ হাজার কোটি টাকা। এত পরিমাণ অর্থের সংস্থানে কোনো রকম সমস্যা হবে না বলে কেন্দ্রীয় ক্রীড়া মন্ত্রী ও সরকারের মুখপাত্র অনুরাগ ঠাকুর জানিয়েছেন।

I'm Suhana Khan, I'am a professional blogger and a teacher. I am happy to share new information and it's proud for me. I have 3 years experience of blogging.

Leave a Comment