সরকারের কাছ থেকে পোস্ট অফিসের ফ্রাঞ্চাইজি নিয়ে প্রতি মাসে মোটা টাকা ইনকামের সুযোগ 

বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গে চাকরির কি অবস্থা সেটা আমরা সকলেই জানি। তবে এর কারণে হতাশ হয়ে যাওয়ার কোন দরকার নেই সরকারি চাকরি হয়নি তো কি হয়েছে এ ছাড়া আরো অনেক বিকল্প পথ রয়েছে। আর সেই জন্যই আপনাদের সামনে একটা চমৎকার সুযোগ নিয়ে চলে এসেছে ইন্ডিয়ান পোস্টাল সার্ভিস।

আপনি যদি এই সরকারি বিভাগের ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে একটু আলাদাভাবে নিজের পথ চলা শুরু করেন তাহলে সাফল্যটা অনেকটা তাড়াতাড়ি পাওয়া যাবে। আমরা সকলেই জানি পোস্ট অফিস একটি সরকারি বিভাগ এবং মানুষের বিশ্বাস রয়েছে পোস্টাল সার্ভিস এর উপর তাই সুযোগ হাতছাড়া না করে পোস্ট অফিসের ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে প্রত্যেক মাসে মোটা অংকের টাকা রোজগার করতে পারবেন।

অনেক জায়গা আছে যেখানে ডাকঘর নেই সেই সব জায়গায় ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে পোস্ট অফিস থেকে ভালো অংকের টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তবে এর জন্য আপনাকে লাখ টাকা বিনিয়োগ করতে হবে না। আপনাকে শুধুমাত্র 10,000 টাকা পোস্ট অফিস কর্তৃপক্ষের কাছে জমা করতে হবে আউটলেট ফ্রাঞ্চাইজি ফি বাবদ।

রাজ্যে নতুন করে রেশন ডিলার নিয়োগ ২০২৪, ডিলারশিপ নেওয়ার জন্য এইসব কাগজপত্র জমা করুন তাড়াতাড়ি

আর এখান থেকেই কমিশনের মাধ্যমে প্রত্যেক মাসে মোট অংকের টাকা আয় করার সুযোগ পেয়ে যেতে পারেন। অনেক আগে থেকেই এজেন্টের মাধ্যমে ফ্র্যানচাইজি দেওয়া হচ্ছে এটা কোন নতুন ব্যাপার নয়। অনেক বছর ধরেই এই ব্যাপারটা চলে আসছে। 

প্রত্যেক মাসে মোটা টাকা ইনকাম করুন পোস্ট অফিসের ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে

পোস্ট অফিসের ফ্রাঞ্চাইজি নিয়ে কিন্তু আপনি সীমাহীন ভাবে প্রত্যেক মাসে আয় করতে পারবেন। তবে এখানে কিন্তু আপনাকে সরকারের তরফ থেকে কোনরকম বেতন দেয়া হবে না। প্রধানত সাধারণ মানুষকে পোস্ট অফিসের বিভিন্ন পরিষেবা দিয়ে ডাকঘর থেকে কমিশন পেয়ে যাবেন, এখানে আয়ের উৎস মূলত কমিশনের টাকায়।

যেমন ধরুন একটি রেজিস্টার্ড পোস্ট এর পিছনে 3 তিন টাকা কমিশন পাবেন, অনেকে স্পিড পোস্ট করে সেখান থেকে প্রত্যেক পোস্ট পিছনে 5 টাকা কমিশন বরাদ্দ আছে, 100-200 টাকার মধ্যে কেউ মানি অর্ডার করলে 3.50 টাকা কমিশন রয়েছে, 200 টাকার বেশি মানি অর্ডার করলে কমিশন থাকছে 5 টাকা, এখন আপনার যদি পরিষেবা ভালো হয় অর্থাৎ মানি অর্ডার সহ অন্যান্য পরিষেবা গুলি গ্রাহকদের দিতে পারলে পোস্ট অফিসের তরফ থেকে একটা বোনাসের সুবিধা রয়েছে। ভালোভাবে দেখলে এক মাসে আপনি 7% থেকে 25% পর্যন্ত শুধু কমিশনই পেয়ে যাবেন। 

কারা এই পোস্ট অফিসের ফ্র্যাঞ্চাইজি নিতে পারবে 

পোস্ট অফিসের ফ্রাঞ্চাইজি নেয়ার জন্য যেসব শর্তগুলি মানতে হবে : 

  • ফ্র্যাঞ্চাইজি নিতে ইচ্ছুক ব্যক্তির বয়স 18 বছরের ঊর্ধ্বে থাকতে হবে।
  • যে কোন প্রতিষ্ঠিত স্থান থেকে অবশ্যই মাধ্যমিক পাস থাকতে হবে। 
  • পোস্ট অফিসের ফ্র্যাঞ্চাইজি পাওয়ার জন্য আপনাকে পোস্ট অফিস কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন জানাতে হবে নির্বাচিত হওয়ার পর পোস্ট অফিস কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আপনার একটি MOU স্বাক্ষর করা হবে। যেখানে কমিশনের কত হার থাকবে এবং অন্যান্য শর্তাবলী দেওয়া থাকবে নির্বাচনের পরেই আপনাকে ফ্রাঞ্চাইজি ফি বাবদ 10 হাজার টাকা জমা করতে হবে। 

পোস্ট অফিসের ফ্রাঞ্চাইজি আবেদনের পদ্ধতি 

  1. পোস্ট অফিস নেওয়ার জন্য সর্বপ্রথম আপনাকে ভারতীয় ডাকঘরের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
  2. অফিসিয়াল লিংকটি আমরা দিয়ে রেখেছি https://www.indiapost.gov.in/VAS/DOP_PDFFiles/Franchise.pdf এই লিংকে ক্লিক করে ফ্র্যাঞ্চাইজের জন্য আবেদন ফরম ডাউনলোড করে সেটিকে ভালোভাবে ফিলাপ করে ডাকঘর কর্তৃপক্ষের কাছে জমা করুন। 

I'm Suhana Khan, I'am a professional blogger and a teacher. I am happy to share new information and it's proud for me. I have 3 years experience of blogging.

Leave a Comment