TVS Apache RR 200: ফাঁস হল অ্যাপাচি বাইকের ছবি, সবাইকে টক্কর দিতে এই বছরই লঞ্চ

ভারতীয় ইয়ংস্টারদের রেসিং দুনিয়ায় স্বাগত জানিয়েছে TVS Apache এই কম্পানির বাইক পছন্দ করেন না এমন মানুষ হয়তো পাওয়া যাবে না। Apache RTR 310 পুজোর আগে লঞ্চ করে সারা ভারতে বিরাট চমক দিয়েছিল। টিভিএস কোম্পানির তরফ থেকে এন্টি লেভেলের ফুল ফেয়ার্ড স্পোর্টস বাইক লঞ্চ করার কথা শুরু হতেই চারিদিকে গুঞ্জন চালু হয়েছে। বাইকটি TVS Apache RR 200 নামে হতে পারে বলে জানা গেছে, RR 310 বাইকটির ডিজাইনের উপর ভিত্তি করে তৈরি হবে Apache RTR 200 4V. বাইকটির একটি ছবি সম্পতি ইন্টারনেটে খুব ভাইরাল হয়েছে।

TVS Apache RR 200 Design

ইন্টারনেট থেকে পাওয়া ছবি অনুযায়ী TVS Apache RR 200 বাইকটির আকর্ষণীয় বিষয় হলো এগ্রেসিভ ফ্রন্ট ডিজাইন এবং দামদার গ্রাফিক্স। তথ্য অনুযায়ী যদি বাইকটি সত্যিই লঞ্চ হয় তাহলে সরাসরি KTM RC 200, Bajaj Pulsar RS200 এবং Hero Karizma XMR 200 বাইকগুলোর সাথে টক্কর নেবে। বাইকটিতে ফ্রন্ট কাউল মাউন্টেড রিয়ার ভিউ মিরর, কম্প্যাক্ট উইন্ড স্ক্রিন, লো সেট হ্যান্ডেলবার, শার্প ফেয়ারিং, স্প্লিট সিট এবং আপসোয়েপ্ট এগজস্ট দেখা গেছে।

TVS Apache RR 200

Image source- www.rushlane.com

TVS Apache RR 200 Color & Features

বাইকটির মধ্যে টেকনোলজি হিসেবে থাকবে ব্লুটুথ চালিত ডিজিটাল ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার, লিন অ্যাঙ্গেল মোড, নেভিগেশন, কল এবং এসএমএস নোটিফিকেশন, ক্র্যাশ অ্যালার্ট সিস্টেম এবং লো ফুয়েল অ্যালার্ট এর মত ফিচারস। কালার হিসেবে বাইকটিতে রয়েছে লাল, কালো এবং গ্রে যা ক্রেতারা তাদের পছন্দ অনুযায়ী কিনতে পারবেন।

KTM এর বাজার শেষ করতে বাজারে আসতে চলেছে Yamaha MT 03 নতুন লুকে

TVS Apache RR 200 Engine

TVS Apache RR 200 মডেলটি সম্ভবত RTR 200 4V এর মতই হবে। ইঞ্জিনের ব্যাপারটাও খানিকটা একই রকম হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। RTR 200 4V এর ফুল ফেয়ার্ড ভার্সন টি 197.75 CC অয়েল কুল্ড ফুয়েল ইনজেক্ট ইঞ্জিন থাকতে পারে। যেটি থেকে সর্বোচ্চ 20.5 hp ক্ষমতা এবং 17.25 nm টর্ক তৈরি করতে পারবে। এই রেঞ্জের অন্যান্য বাইক কম্পানি গুলিকে টক্কর দিতে ডবল ক্র্যাডেল স্প্লিট সিংক্রো স্টিফ ফ্রেম সহ ইনভার্টেড ফ্রন্ট ফর্ক থাকতে পারে।

tvs apache 200 rr

TVS Apache RR 200 Price

কম্পানির তরফ থেকে এখনো পর্যন্ত RR200 এর দাম সম্পর্কে কোনো রকম তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে ভারতীয় বাজার কে মাথায় রেখে সংস্থাটি বাইকটির দাম নাগালের মধ্যেই রাখবে বলে মনে করা হয়। KTM RC 200 (দাম 2.18 লাখ টাকা), Bajaj Pulsar RS200 (দাম 1.72 লাখ টাকা) এবং Hero Karizma XMR 200 (দাম 1.08 লাখ টাকা) এই বাইকগুলির দামের তুলনায় খানিকটা সস্তা হতে পারে বলে আশা করা যায়।

I'm Suhana Khan, I'am a professional blogger and a teacher. I am happy to share new information and it's proud for me. I have 3 years experience of blogging.

Leave a Comment