উপকূল এক্সপ্রেস সময়সূচী ২০২৪ | ভাড়া ও টিকিট মূল্য [Update 2024]

বন্ধুরা আজকে আমরা আপনাদের সাথে উপকূল এক্সপ্রেস সময়সূচী ২০২৪ সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য আপনাদের সাথে আলোচনা করব। আমরা সাধারণ মানুষরা প্রতিনিয়ত কাজের জন্য অথবা ভ্রমণের জন্য ট্রেনে করে যাত্রা করে থাকি, তাই আমাদের যে কোনো ট্রেনে চাপার আগে সেই ট্রেনের সময়সূচী সম্পর্কে আগাম তথ্য জানা দরকার। আজকে এই প্রবন্ধের মাধ্যমে উপকূল এক্সপ্রেস সময়সূচী ২০২৪ এর একটি তালিকা আমরা আপনাদের দেবো তালিকাটি দেখে নেবেন।

আপনি যদি বাংলাদেশের অপরূপ সৌন্দর্য দেখতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে আধুনিক প্রযুক্তিযুক্ত বিলাসবহুল এবং জনপ্রিয় উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনে করে স্বল্প খরচায় এবং আরামের সাথে ভ্রমণ করতে পারবেন।উপকূল এক্সপ্রেস প্রতিনিয়ত অসংখ্য যাত্রী নিয়ে ঢাকা কমলাপুর স্টেশন থেকে নোয়াখালী পর্যন্ত যাতায়াত করে। ভ্রমণ উপভোগ করার জন্য উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনটি আপনার জন্য একদম উপযুক্ত হবে।

Upakul express train

উপকূল এক্সপ্রেস সময়সূচী ২০২৪ নিয়ে লেখা এই প্রবন্ধের মাধ্যমে আপনারা উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়া এবং এই ট্রেনের বিরতি স্টেশন সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। চলুন সময় নষ্ট না করে উপকূল এক্সপ্রেস সময়সূচী ২০২৪ এর তালিকাটি ভালোভাবে দেখে নিন। যাতে করে আপনাদের ভ্রমণযাত্রা সুন্দর হয়।

উপকূল এক্সপ্রেস সময়সূচী ২০২৪

উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনটি সম্বন্ধে আমরা আপনাদের একটি ছোট্ট বিবরণ দিয়েছি। এবার জেনে নিন উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ২০২৪

উপকূল এক্সপ্রেস ঢাকা কমলাপুর স্টেশন থেকে দুপুর ০৩:২০ মিনিটে নোয়াখালীর স্টেশনের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে। এবং রাত্রি ০৯:২০ মিনিটে ট্রেনটি তার গন্তব্য স্টেশন নোয়াখালীতে পৌঁছায়। উপকূল এক্সপ্রেস সপ্তাহে ৬দিন ঢাকা কমলাপুর রুটে যাতায়াত করে এবং এই রুটে মঙ্গলবার দিন ট্রেনটি তার যাত্রা বন্ধ রাখে।

পুনরায় ট্রেনটি নোয়াখালী স্টেশন থেকে সকাল ০৬:০০ মিনিটে ঢাকা কমলাপুর স্টেশন এর দিকে যাত্রা শুরু করে এবং বেলা ১১:৪৫ মিনিটে উপকূল এক্সপ্রেসটি গন্তব্য স্টেশন ঢাকায় পৌঁছায়। বুধবার দিন ছাড়া ট্রেনটি সপ্তাহে ০৬ দিন এই রুটে যাতায়াত করে।

যাত্রীদের সুবিধার্থে উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ২০২৪ এর তালিকাটি নিচে দেয়া হলো।

স্টেশনের নামছাড়ার সময়পৌঁছানোর সময়ছুটির দিন
কমলাপুর টু নোয়াখালী (৭১১)১৫:২০২১:২০মঙ্গলবার
নোয়াখালী টু কমলাপুর (৭১২)০৬:০০১১:৪৫বুধবার

সকল ট্রেনের সময়সূচী জানতে ক্লিক করুন

উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়া তালিকা

যেকোনো জায়গায় ভ্রমণ করার জন্য আমরা বাস ট্রেন এবং এরোপ্লেনের ব্যবহার করে থাকি, তবে কম খরচে বিলাসবহুল ভ্রমণের জন্য ট্রেন হল অসাধারণ বিকল্প। যে কোনো মানুষ তার ভ্রমণের স্বপ্ন পূরণ করার জন্য ট্রেনকেই বেছে নেয়, কারণ এতে খরচ অনেকটা সাশ্রয় হয়। উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনটি বিলাসবহুল ট্রেন হওয়ায় এই ট্রেনে অনেকগুলি শ্রেণীবিভাগ আছে। ট্রেনটির মধ্যে শ্রেণীবিভাগ থাকায় ভাড়া গুলিও আলাদা আলাদা হয়ে থাকে, যার ফলে সকল সামর্থের মানুষই উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনের ভ্রমণ উপভোগ করতে পারে। আসুন দেখে নেব উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা।

স্টেশন নামএসি বার্থএসি সিট১ম বার্থ১ম চেয়ার সিটশোভন চেয়ারশোভন
নোয়াখালী৯৩২ টাকা৬২১ টাকা৫৪০ টাকা৩৬০ টাকা২৭০ টাকা২২৫ টাকা
মাইজদীকোট৯৩২ টাকা৬২১ টাকা৫৪০ টাকা৩৬০ টাকা২৭০ টাকা২২৫ টাকা
চৌমুহনী৯৩২ টাকা৬২১ টাকা৫৪০ টাকা৩৬০ টাকা২৭০ টাকা২২৫ টাকা
বজরা৯৩২ টাকা৬২১ টাকা৫৪০ টাকা৩৬০ টাকা২৭০ টাকা২২৫ টাকা
সোনাইমুড়ি৯৩২ টাকা৬২১ টাকা৫৪০ টাকা৩৬০ টাকা২৭০ টাকা২২৫ টাকা
নাথের পেটুয়া৯৩২ টাকা৬২১ টাকা৫৪০ টাকা৩৬০ টাকা২৭০ টাকা২২৫ টাকা
লাকসাম৭৭৭ টাকা৫১৮ টাকা৪৫০ টাকা৩০০ টাকা২৫৫ টাকা১৯০ টাকা
কুমিল্লা৭০২ টাকা৪৬৬ টাকা৪০৫ টাকা২৭০ টাকা২০৫ টাকা১৭০ টাকা
কসবা৫৯৮ টাকা৩৯৭ টাকা৩৪৫ টাকা২৩০ টাকা১৭৫ টাকা১৪৫ টাকা
আখাউড়া৫৪১ টাকা৩৬৩ টাকা৩১৫ টাকা২১০ টাকা১৬০ টাকা১৩৫ টাকা
ব্রাক্ষণবাড়ীয়া৪৮৯ টাকা৩২৮ টাকা২৮৫ টাকা১৯০ টাকা১৪৫ টাকা১২০ টাকা
আশুগঞ্জ৪৪৩ টাকা২৯৮ টাকা২৫৫ টাকা১৭০ টাকা১৩০ টাকা১১০ টাকা
বিমানবন্দর৪৪৩ টাকা২৯৮ টাকা২৫৫ টাকা১৭০ টাকা১৩০ টাকা১১০ টাকা

জয়ন্তিকা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ২০২৪

উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনের স্টপেজ স্টেশন

উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকা কমলাপুর স্টেশন থেকে নোয়াখালী পর্যন্ত এতটা পথ অতিক্রম করতে অনেকগুলি স্টেশনে বিরতি নেয়। ট্রেনের বিরতি নেওয়া এটা স্বাভাবিক বিষয় কারণ, অনেক মানুষ বিভিন্ন স্টেশন থেকে ট্রেনে ওঠা নামা করেন। আপনাদের ঢাকা টু নোয়াখালী পর্যন্ত যাত্রা করার আগে অবশ্যই উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনের স্টপেজ গুলি সম্পর্কে ধারণা থাকা দরকার কারণ এতে করে আপনাদের যাত্রা পথের অনেক সুবিধা হবে। আসুন দেখে নিনি উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনের বিরতি স্টেশনের তালিকাটি।

স্টেশন নামনোয়াখালী থেকে (৭১২)ঢাকা (কমলাপুর) থেকে (৭১১)
মাইজদীকোট০৬:০৭২১:১০
চৌমুহনী০৬:২৩২১:০০
বজরা০৬:৩৫২০:৪৫
সোনাইমুড়ি০৬:৪৬২০:৩০
নাথের পেটুয়া০৭:০০২০:১৫
লাকসাম০৭:৩০২০:০০
কুমিল্লা০৭:৫৮১৯:৪১
কসবা০৮:৩৬১৮:৫০
আখাউড়া০৯:০৩১৮:২১
ব্রাক্ষণবাড়িয়া০৯:৩২১৭:৪০
আশুগঞ্জ০৯:৫১১৭:২০
নরসিংদী১০:৩২১৬:৩৩
বিমানবন্দর১১:১৫১৫:৫০

নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

ট্রেনে চাপার নিয়ম

ট্রেনে চাপার আগে অবশ্যই আমাদের ট্রেনের নিয়ম কানুন গুলি জেনে রাখতে হয়। সেই নিয়মগুলি কি তা জেনে নিন..

  • প্রথমে আপনাদের বলে রাখি টিকিট ছাড়া ট্রেনে ভ্রমণ করা দণ্ডনীয় অপরাধ।
  • আপনার ট্রেনের টিকিট টি নিজের কাছে যত্ন সহকারে রাখুন যতক্ষণ পর্যন্ত স্টেশন থেকে বেরিয়ে না আসছেন।
  • আপনার মালপত্র আপনার নিজের দায়িত্বেই রাখুন।
  • অযথা ট্রেনের স্টপচেইন টানবেন না।
  • আপনার পরিচিত ব্যক্তি ছাড়া অন্য ব্যক্তির দেওয়া কোনো খাবার খাবেন না।
  • ট্রেন থেকে অযথা উঠানামা করবেন না।
  • ট্রেনের মধ্যে জ্বলনশীল বস্তু নিয়ে উঠবেন না।

শেষ কথা

আমরা আপনাদের জানিয়ে দেবো উৎসবের মরশুম অর্থাৎ ঈদের সময় বা পার্বনের সময় বাংলাদেশ ভ্রমণ করার জন্য অবশ্যই আপনাদের আন্তঃনগর ট্রেনগুলিকে বেছে নিতে হবে। কারণ এই ট্রেনগুলি ভ্রমণের জন্য সবথেকে উপযুক্ত ট্রেন। স্টেশনে টিকিটের জন্য অপেক্ষা করা এড়াতে অনলাইনে আগে থেকে টিকিট বুকিং করে রাখবেন কারণ, অনেক সময় আমরা ট্রেনের টিকিট কাটতে কাটতে ট্রেনটি স্টেশন থেকে চলে যায়।

আমাদের আজকে উপকূল এক্সপ্রেস সময়সূচী ২০২৪ এবং উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়া এবং বিরতি স্টেশন গুলি নিয়ে প্রবন্ধটি আশা করি আপনাদের ভ্রমণের জন্য গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রদান করতে পেরেছে। আপনাদের কাছে প্রবন্ধটি যদি গুরুত্বপূর্ণ মনে হয় তাহলে অবশ্যই একটি শেয়ার করতে পারেন এবং সমস্যা থাকলে আপনারা কমেন্ট করে জানাতে পারেন আমরা তার উত্তর শীঘ্রই আপনাদের দিয়ে দেব। আমরা আপনাদের ভ্রমণ যাত্রায় শুভ কামনা করি। ধন্যবাদ।

I'm Suhana Khan, I'am a professional blogger and a teacher. I am happy to share new information and it's proud for me. I have 3 years experience of blogging.

Leave a Comment